ফরিদগঞ্জে নিম্নমানের ইট দিয়ে সড়ক নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দিয়েছে এলাকাবাসী

ফরিদগঞ্জে নিম্নমানের ইট দিয়ে সড়ক নির্মাণের অভিযোগে বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী কাজ বন্ধ করে দিয়েছে। এদিকে কাজের মান নিয়ে আনিত অভিযোগের বিষয়ে তদন্ত করেছে সংশ্লিষ্ট দপ্তরের লোকজন।

জানা গেছে, ফরিদগঞ্জ উপজেলার ৮নং পাইকপাড়া দক্ষিণ ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের ইছাপুর থেকে ইউনিয়ন পরিষদ কমপ্লেঙ্ পর্যন্ত স্থানীয় সরকার অধিদপ্তরের এলজিএসপি প্রকল্পের মাধ্যমে ৬ লাখ ৫৪ হাজার টাকা ব্যয়ে ১১শ’ মিটার ইটের সলিং কাজ শুরু হয় কয়েকদিন পূর্বে। কিন্তু সড়কের কাজ এক নম্বর ইট দিয়ে করার কথা থাকলেও স্থানীয়দের অভিযোগ, সংশ্লিষ্ট ঠিকাদার ব্যবহার করছেন নিম্নমানের ইট। ফলে তারা বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠে নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দেয়। একই সাথে কর্তৃপক্ষ বরাবর অভিযোগ করে।

গ্রামবাসী মোহাম্মদ হোসেন মিন্টু পাটওয়ারী জানান, এই সড়কটি দীর্ঘদিনের অবহেলিত। রাস্তা নির্মাণ সলিং শুরু হলেও ঠিকাদার নিম্নমানের ইট দিয়ে কাজ করছে। ফলে দ্রুত সড়কটি নষ্ট হয়ে যেতে পারে। সেজন্য এলাকাবাসী ক্ষুব্ধ হয়ে নির্মাণ কাজ বন্ধ করার সাথে সাথে কর্তৃপক্ষকে অবহিত করেছে।

এদিকে নির্মাণ কাজে অনিয়মের অভিযোগে গত সোমবার ঘটনাস্থলে গিয়ে তদন্ত করেছেন চাঁদপুর স্থানীয় সরকার অধিদপ্তরের ডিএফ বিজয় উদ্দিন সরকার। এসময় তিনি নিম্নমানের ইট দেখতে পেয়ে ঠিকাদারকে দ্রুত এগুলো সরিয়ে এক নম্বর ইট দিয়ে কাজ করার নির্দেশ দেন।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ শওকত আলী জানান, সড়কটি নির্মাণে ভালো ইট ব্যবহারের কথা রয়েছে। ঠিকাদার যদি ভালো ইট দিয়ে কাজ না করে তা হলে ঠিকাদারকে বিল প্রদান করা হবে না।

তবে ঠিকাদার জসিম পাঠান জানান, ইটভাটার লোকজনকে ভালো ইট দেয়ার কথা বললেও কিছু খারাপ ইট দেয়ায় এ সমস্যা সৃষ্টি হয়েছে। তবে আগামীতে ভালো ইট দিয়ে কাজ করা হবে।

Related posts