ফরিদগঞ্জে আওয়ামী লীগের সভায় হামলার ঘটনায় মামলা, আটক ৭

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে উপজেলা আওয়ামী লীগের আলোচনা সভায় প্রতিপক্ষের হামলায় ঘটনায় মামলা দায়ের হয়েছে। পুলিশ মামলা গ্রহণ করে অভিযুক্ত ৭জনকে আটক করে শনিবার চাঁদপুর আদালতে প্রেরণ করেছে। আটককৃতরা হলো যুবলীগ নেতা সুলতান মৃধা সবুজ, সাইফুল ইসলাম বেলাল, সাগর হোসেন, শুক্কু মিয়া, জুয়েল হোসেন, সাইফুল ইসলাম রাজন, রবিউল সানি।

জানা গেছে, শুক্রবার সকালে বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে উপজেলা আওয়ামী লীগের আলোচনা সভায় আওয়ামী লীগ যুবলীগ ও ছাত্রলীগের ব্যানারে একদল অস্ত্রধারী যুবক হামলা করে আওয়ামী লীগ অফিসে হামলা করে ভাংচুর, তিনটি গাড়ী ও ২৫/৩০টি মোটর সাইকেল ভাংচুর ,জাতির পিতা ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি ভাংচুরের ঘটনা ঘটায় এমন অভিযোগ করে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি যুদ্ধাহত বীরমুক্তিযোদ্ধা আবুল খায়ের পাটওয়ারীওই রাতেই বাদী হয়ে মামলা দায়ের করে। মামলায় উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক আবু সুফিয়ানকে প্রধান আসামী করে ৪৮জনের নাম উল্লেখ এবং অজ্ঞাত ২শতাধিক লোককে আসামী করা হয়। পরে থানা মামলাটি গ্রহনের পর রাতে চাঁদপুর থেকে চাঁদপুরের ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার মিজানুর রহমানের নেতৃত্বে ডিবি পুলিশ ও ফরিদগঞ্জ থানা পুলিশ যৌথ অভিযান চালিয়ে উক্ত ৭জনকে আটক করে।

এব্যাপারে ফরিদগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুর রকিব জানান, মামলা গ্রহণ করা হয়েছে। তদন্তকারী কর্মকর্তা মামলা তদন্ত করছেন। ৭জনকে আটকের পর শনিবার আদারতে পাঠানো হয়েছে।

Related posts