মতলবে ৬ শতাধিক কাঠ গাছ পুড়িয়ে শত্রুতা উদ্ধার

মানুষে মানুষে শত্রুতার ফলে গাছের সাথে শত্রুতা উদ্ধার করার ঘটনা ঘটেছে। যে শত্রুতার বলি হয়েছে ২ বিঘা জমির ৬ শতাধিক কাঠ গাছের চারা। এমনটা ঘটানো হয়েছে ১৯ জানুয়ারি রোববার বিকেলে মতলব উত্তর উপজেলার ষাটনল ইউনিয়নের পূর্ব লালপুর গ্রামে।

সেগুন, বেলজিয়াম, মেহগনি জাতের গাছের চারা নিজ জমিতে রোপণ করেন প্রবাসে থাকা মুক্তিযোদ্ধা বজলুর রহমান। দেশে থাকা অবস্থায় তিনি ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক।

রাজনৈতিক জীবনে কারো সাথে তার শত্রুতা থাকতেই পারে কিন্তু তার বলি হবে ৬ শতাধিক গাছ এমনটা ভাবতেই পারেনি বলে জানালেন বজলুর রহমানের ভাতিজা হাফিজুর রহমান ফরহাদ।

স্থানীয় কয়েকজনের সাথে কথা হলে তারা জানায়, কিছুটা নির্জন জায়গাতেই এ কাঠের বাগানটি অবস্থিত। কাঠ গাছের চারাগুলো কিছুটা বড় হয়েছে। বাগানের আগাছাগুলো মারার জন্যে ঔষধ ছিটানোর ফলে আগাছাগুলো শুকিয়ে ছিলো বলেই শত্রুদের জন্যে আগুন লাগানো সহজ হয়েছে। শুকিয়ে থাকা আগাছাগুলোতে আগুন লাগানোর ফলে দ্রুত ছড়িয়ে পরে আগুন এবং কাঠগাছগুলো পুড়ে যায়।

এ ব্যাপারে স্থানীয় ইউপি সদস্য হাবিব মিয়াজী জানান, খবর পেয়ে আমি স্থানীয় গণ্যমান্যদের নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে যা দেখলাম তা সত্যিই দুঃখজনক, অমানবিক। মানুষের সাথে মানুষের শত্রুতা থাকতেই পারে কিন্তু এরকমটা মোটেও কাম্য না।

Related posts