চাঁদপুর শহরকে বাণিজ্যিক ও পর্যটন এলাকায় পরিণত করবো : জিল্লুর রহমান জুয়েল

‘আমার দ্বারা আপনাদের কখনো অসম্মান হবে না। আগে কী হয়েছে, কী হয় নাই, কে কী করেছে, কী করে নাই, কার চরিত্র কেমন, আমি তা কিছুই বলবো না। আমি কেমন তা আপনাদের জানাবো, আমি কী করবো তা বলবো। নির্বাচনে আমার প্রথম অংশগ্রহণ হলেও আমার নির্বাচনী অভিজ্ঞতা অনেক। আমার নির্বাচনী প্রচারণায় যারা অংশগ্রহণ করেছেন, যারা আমার হয়ে জনগণের কাছে ভোট চাইছেন, তারা আপনাদের কাছে যে সকল কাজ করে দিবে বলে ওয়াদাবদ্ধ হয়েছেন, আমি তাদের সকল কথা রাখবো। সেই কর্মীগুলোকে যাতে এলাকায় লজ্জা পেতে না হয়’। বেশ আবেগ ও ভালোবাসা দিয়ে কথাগুলো বলেছেন আসন্ন চাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকার প্রার্থী অ্যাডভোকেট জিল্লুর রহমান জুয়েল। গতকাল বুধবার চাঁদপুর পৌরসভার ১৪নং ওয়ার্ডের দাসদী অভয় বাবুর দিঘির পাড়ে নির্বাচনী উঠোন বৈঠকে তিনি কথাগুলো বলেন। তিনি আরো বলেন, চাঁদপুরকে বাণিজ্যিক ও পযর্টন এলাকায় পরিণত করতে, পুরানো চাঁদপুরকে নতুন রূপে দেখতে আমাকে নৌকা মার্কায় ভোট দিন।

উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক অ্যাডঃ জহিরুল ইসলাম, কৃষি বিষয়ক সম্পাদক অজয় ভৌমিক, সহ দপ্তর সম্পাদক অ্যাডঃ রনজিত রায় চৌধুরী, যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক মাসুদ আলম মিল্টন, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলী আরশাদ মিয়াজী, সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক সুকমল কর রামু, সহ-প্রচার সম্পাদক মনির গাজী, অ্যাডঃ সাইফুদ্দিন বাবু, ১৪নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ও কাউন্সিলর প্রার্থী খাইরুল ইসলাম নয়ন মিজি, সাধারণ সম্পাদক মোজাম্মেল হক পাটওয়ারী, সহ-সভাপতি হোসেন শেখ, মানিক খান, মহসিন মজুমদার, ফারুক মজুমদার, ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি শেখ মোস্তফা কামাল, সাধারণ সম্পাদক আমিন খান, সভাপতি সঞ্জয় কুমার দেসহ ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগের নেতা-কর্মী।

জিল্লুর রহমান জুয়েল গতকাল দিনভর ১৪নং ওয়ার্ডের বিভিন্ন জায়গায় ব্যাপক গণসংযোগ করেন এবং উঠোন বৈঠক করেন। প্রতিটি এলাকায় শত শত নারী-পুরুষ ও তরুণের ব্যাপক সমাগম ঘটে। চাঁদপুর পৌরসভার ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা নিয়ে তিনি তার চমৎকার কিছু পরিকল্পনার কথা তুলে ধরেন।

Related posts