চাঁদপুরে যথাযোগ্য মর্যাদায় জাতির পিতার শততম জন্মবার্ষিকী উদযাপন

স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শততম জন্মবার্ষিকী চাঁদপুরে যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হয়েছে। বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন, মিলাদ ও দোয়া মাহফিল, কেক কাটা এবং কোথাও কোথাও বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে অত্যন্ত ভাবগাম্ভীর্যের সাথে দিবসটি পালিত হয়। সকল দোয়া অনুষ্ঠানে বিশ্বব্যাপী আতঙ্ক করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ থেকে রক্ষা পেতে মহান রাব্বুল আলামিনের কাছে বিশেষ প্রার্থনা করা হয়। অর এই করোনা ভাইরাস নামে মহামারির সংক্রমণ থেকে রক্ষা পেতেই বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী তথা মুজিববর্ষ সূচনা অনুষ্ঠানের সকল কিছু সংক্ষিপ্ত করা হয়।

গতকাল ভোর ৬টা ১০ মিনিটের সময় অঙ্গীকার সংলগ্ন রেললাইনের পাশে ৩১ বার তোপধ্বনি দেয়া হয়। এই তোপধ্বনির মধ্য দিয়েই দিবসের অনুষ্ঠান শুরু হয়। এরপর অঙ্গীকারের সামনে স্থাপিত বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন স্বরূপ পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। প্রথমে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। এরপর জেলা পুলিশ, স্বাস্থ্য বিভাগ, চাঁদপুর প্রেসক্লাব, আওয়ামী লীগ, জেলা পরিষদ, সদর উপজেলা পরিষদসহ বিভিন্ন সংগঠন ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান নিজ নিজ উদ্যোগে নিজস্ব অফিস ও প্রতিষ্ঠানে আলোচনা, মিলাদ ও দোয়া এবং কেক কাটার আয়োজন করে। তবে সরকারি নিষেধাজ্ঞা থাকায় জনসমাগম করা হয়নি। বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বৃক্ষরোপণ করা হয়। আলোচনা সভায় বঙ্গবন্ধুর বর্ণাঢ্য জীবনী নিয়ে আলোচনা করা হয়। জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে দুঃস্থদের মাঝে খাবার বিতরণ করা হয়। এছাড়া জাতির পিতার প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন স্বরূপ জনহিতকর নানা কর্মসূচি পালন করা হয় জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে। তবে খুবই দৃষ্টিনন্দন ছিলো সরকারি, বেসরকারি ও বিভিন্ন পেশাজীবী প্রতিষ্ঠানের ভবন ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান আলোকসজ্জা করা হয়। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের দেয়ালে দেয়ালে বঙ্গবন্ধুর ছবি সম্বলিত নানা ধরনের ব্যানার ও ফেস্টুন লাগানো হয়।

Related posts