বিশ্বজুড়ে ১৮৮৯১ জনের প্রাণ কেড়েছে করোনা

বিশ্বজুড়ে ১৮ হাজার ৮৯১ জনের প্রাণ কেড়ে নিয়েছে করোনাভাইরাস। এখন পর্যন্ত মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৪ লাখ ২২ হাজার ৬১৩। এছাড়া চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছে ১ লাখ ৮ হাজার ৮৭৯ জন।

এখন পর্যন্ত ১৯৭টি দেশ ও অঞ্চলে করোনার প্রকোপ ছড়িয়ে পড়েছে। করোনাভাইরাসে এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি আক্রান্তের সংখ্যা চীনে। দেশটিতে নতুন করে আরও ৪৭ জন এই ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৮১ হাজার ২১৮। অপরদিকে করোনায় আকান্ত হয়ে মারা গেছে ৩ হাজার ২৮১ জন।

বিশ্বে করোনায় সবচেয়ে বেশি প্রাণহানি ঘটেছে ইতালিতে। দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় ৭৪৩ জন করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে। ফলে এখন পর্যন্ত প্রাণ হারিয়েছে ৬ হাজার ৮২০ জন। নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে ৫ হাজার ২৪৯ জন। ফলে দেশটিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৬৯ হাজার ১৭৬। ইউরোপের দেশটিতে এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছে ৮ হাজার ৩২৬ জন।

অপরদিকে যুক্তরাষ্ট্রে আক্রান্তের সংখ্যা ৫৪ হাজার ৮০৮ এবং মৃত্যু হয়েছে ৭৭৫ জনের। স্পেনে আক্রান্তের সংখ্যা ৪২ হাজার ৫৮ এবং মারা গেছে ২ হাজার ৯৯১ জন।

korona

জার্মানিতে আক্রান্তের সংখ্যা ৩২ হাজার ৯৯১ এবং মারা গেছে ১৫৯ জন। ইরানে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২৪ হাজার ৮১১ এবং মারা গেছে ১ হাজার ৯৩৪ জন।

ফ্রান্সে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ২২ হাজার ৩০৪ এবং মৃত্যু হয়েছে ১ হাজার ১শ জনের। সুইজারল্যান্ডে আক্রান্তের সংখ্যা ৯ হাজার ৮৭৭ এবং মারা গেছে ১২২ জন।

দক্ষিণ কোরিয়ায় করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৯ হাজার ৩৭ এবং মারা গেছে ১২০ জন। যুক্তরাজ্যে এই ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৮ হাজার ৭৭ এবং মৃত্যু হয়েছে ৪২২ জনের।

অস্ট্রেলিয়ায় করোনায় আক্রান্ত হয়েছে ২ হাজার ৩১৭ জন এবং মারা গেছে ৮ জন। অপরদিকে মালয়েশিয়ায় এই ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ১ হাজার ৬২৪ এবং মৃত্যু হয়েছে ১৬ জনের।

নেদারল্যান্ডে করোনায় হয়েছে ৫ হাজার ৫৬০ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ২৭৬ জনের। কানাডায় করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ২ হাজার ৭৯২ এবং মারা গেছে ২৬ জন।

korona

অপরদিকে জাপানে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ১ হাজার ১৯৩ এবং মৃত্যু ৪৩। পাকিস্তানে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৯৭২ এবং মারা গেছে ৭ জন।

থাইল্যান্ডে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৮২৭ এবং মৃত্যু হয়েছে ৪ জনের। সৌদি আরবে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৭৬৭ এবং একজনের মৃত্যু হয়েছে।

সিঙ্গাপুরে করোনায় আক্রান্ত ৫৫৮ এবং মারা গেছে দু’জন। ভারতে করোনায় আক্রান্ত ৫৩৫ এবং ১০ মৃত্যু হয়েছে। কাতারে করোনায় আক্রান্ত ৫২৬। তবে সেখানে এখন পর্যন্ত কোনো প্রাণহানি ঘটেনি।

অপরদিকে, হংকংয়ে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩৮৬ এবং মারা গেছে ৪ জন। এদিকে, বাংলাদেশে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে ৬ জন ফলে দেশটিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৩৯। এখন পর্যন্ত চারজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে এবং ৫ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছে।

# দেশ আক্রান্ত মৃত সুস্থ
১ বাংলাদেশ ৩৯ ৪ ৫
২ চীন ৮১,২১৮ ৩,২৮১ ৭৩,৬৫০
৩ ইতালি ৬৯,১৭৬ ৬,৮২০ ৮,৩২৬
৪ স্পেন ৪২,০৫৮ ২,৯৯১ ৩,৭৯৪
৫ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র (USA) ৩৩,৫৪৬ ৪১৯ ১৭৮
৬ জার্মানি ৩২,৯৯১ ১৫৯ ৩,২৯০
৭ ইরান ২৪,৮১১ ১,৯৩৪ ৮,৯১৩
৮ ফ্রান্স ২২,৩০৪ ১,১০০ ৩,২৮১
৯ সুইজারল্যান্ড ৯,৮৭৭ ১২২ ১৩১
১০ দক্ষিণ কোরিয়া ৮,৪১৩ ৮৪ ১,৫৪০
১১ নেদারল্যান্ডস ৫,৫৬০ ২৭৬ ২
১২ অস্ট্রিয়া ৫,২৮৩ ২৮ ৯
১৩ বেলজিয়াম ৪,২৬৯ ১২২ ৪৬১
১৪ যুক্তরাজ্য (ইউকে) ৩,২৬৯ ১৪৪ ৬৫
১৫ নরওয়ে ২,৮৬৬ ১২ ৬
১৬ কানাডা ২,৭৯২ ২৬ ১১২
১৭ পর্তুগাল ২,৩৬২ ৩৩ ২২
১৮ অস্ট্রেলিয়া ২,৩১৭ ৮ ১১৮
১৯ সুইডেন ২,২৯৯ ৪০ ১৬
২০ ব্রাজিল ২,২৪৭ ৪৬ ২
২১ ইসরায়েল ১,৯৩০ ৩ ৫৩
২২ তুরস্ক ১,৮৭২ ৪৪ ০
২৩ মালয়েশিয়া ১,৬২৪ ১৬ ১৮৩
২৪ ডেনমার্ক ১,৫৯১ ৩২ ১
২৫ আয়ারল্যান্ড ১,৩২৯ ৭ ৫
২৬ জাপান ১,১৯৩ ৪৩ ২৮৫
২৭ লুক্সেমবার্গ ১,০৯৯ ৮ ৬
২৮ ইকুয়েডর ১,০৮২ ২৭ ৩
২৯ পাকিস্তান ৯৭২ ৭ ১৮
৩০ থাইল্যান্ড ৯৩৪ ৪ ৫২
৩১ চিলি ৯২২ ২ ১৭
৩২ পোল্যান্ড ৯০১ ১০ ১
৩৩ রোমানিয়া ৭৯৪ ১২ ৭৯
৩৪ ফিনল্যাণ্ড ৭৯২ ১ ১০
৩৫ সৌদি আরব ৭৬৭ ১ ২৮
৩৬ গ্রীস ৭৪৩ ২০ ২৯
৩৭ ডায়মন্ড প্রিন্সেস (প্রমোদতরী) ৭১২ ১০ ৫৮৭
৩৮ ইন্দোনেশিয়া ৬৮৬ ৫৫ ৩০
৩৯ আইসল্যান্ড ৬৪৮ ২ ৫১
৪০ ভারত ৫৬২ ১১ ৪০
৪১ সিঙ্গাপুর ৫৫৮ ২ ১৫৬
৪২ দক্ষিণ আফ্রিকা ৫৫৪ ০ ৪
৪৩ ফিলিপাইন ৫৫২ ৩৫ ২০
৪৪ কাতার ৫২৬ ০ ৪১
৪৫ রাশিয়া ৪৯৫ ১ ২২
৪৬ স্লোভেনিয়া ৪৮০ ৪ ৩
৪৭ চেক রিপাবলিক ৪৬৪ ০ ৩
৪৮ পানামা ৪৪৩ ৬ ১
৪৯ পেরু ৪১৬ ৭ ১
৫০ মিসর ৪০২ ২০ ৮০
৫১ বাহরাইন ৩৯২ ৩ ১৭৭
৫২ হংকং ৩৮৭ ৪ ১০২
৫৩ আর্জেন্টিনা ৩৮৭ ৬ ৫২
৫৪ ক্রোয়েশিয়া ৩৮২ ১ ৫
৫৫ কলম্বিয়া ৩৭৮ ৩ ৬
৫৬ কলম্বিয়া ৩৭৮ ৩ ৬
৫৭ এস্তোনিয়া ৩৬৯ ০ ৭
৫৮ মেক্সিকো ৩৬৭ ৪ ৪
৫৯ লেবানন ৩১৮ ৪ ৮
৬০ ইরাক ৩১৬ ২৭ ৭৫
৬১ ডোমিনিকান আইল্যান্ড ৩১২ ৬ ৩
৬২ সার্বিয়া ৩০৩ ৩ ১৫
৬৩ চেক রিপাবলিক ২৯৩ ০ ০
৬৪ আলজেরিয়া ২৬৪ ১৯ ২৪
৬৫ আর্মেনিয়া ২৪৯ ০ ১৪
৬৬ বুলগেরিয়া ২১৮ ৩ ৩
৬৭ তাইওয়ান ২১৬ ২ ২৯
৬৮ লিথুনিয়া ২০৯ ২ ১
৬৯ নিউজিল্যান্ড ২০৫ ০ ২২
৭০ স্লোভাকিয়া ২০৪ ০ ৭
৭১ লাটভিয়া ১৯৭ ০ ১
৭২ কুয়েত ১৯১ ০ ৩৯
৭৩ উরুগুয়ে ১৮৯ ০ ০
৭৪ সান ম্যারিনো ১৮৭ ২১ ৪
৭৫ হাঙ্গেরি ১৮৭ ৯ ২১
৭৬ কোস্টারিকা ১৭৭ ২ ২
৭৭ মরক্কো ১৭০ ৫ ৬
৭৮ বসনিয়া ও হার্জেগোভিনা ১৬৮ ৩ ২
৭৯ এনডোরা ১৬৪ ১ ১
৮০ জর্ডান ১৫৪ ০ ১
৮১ ভিয়েতনাম ১৩৪ ০ ১৭
৮২ মলদোভা ১২৫ ১ ২
৮৩ সাইপ্রাস ১২৪ ৩ ৩
৮৪ আলবেনিয়া ১২৩ ৫ ১০
৮৫ তিউনিশিয়া ১১৪ ৪ ১
৮৬ বুর্কিনা ফাঁসো ১১৪ ৪ ৭
৮৭ সংযুক্ত আরব আমিরাত ১১৩ ০ ২৬
৮৮ মালটা ১১০ ০ ২
৮৯ ব্রুনাই ১০৪ ০ ২
৯০ শ্রীলংকা ১০২ ০ ২
৯১ ইউক্রেন ১০২ ৩ ১
৯২ রিইউনিয়ন ৯৪ ০ ১
৯৩ কম্বোডিয়া ৯৩ ০ ৪
৯৪ ভেনেজুয়েলা ৯১ ০ ১৫
৯৫ আজারবাইজান ৮৭ ১ ১০
৯৬ সেনেগাল ৮৬ ০ ৮
৯৭ ওমান ৮৪ ০ ১৭
৯৮ বেলারুশ ৮১ ০ ২২
৯৯ আফগানিস্তান ৭৪ ১ ১
১০০ গুয়াদেলৌপ ৭৩ ১ ০
১০১ আইভরি কোস্ট ৭৩ ০ ২
১০২ কাজাখস্তান ৭২ ০ ০
১০৩ জর্জিয়া ৭০ ০ ৯
১০৪ ক্যামেরুন ৬৬ ১ ২
১০৫ ফারে আইল্যান্ড ৫৮ ০ ১
১০৬ মার্টিনিক ৫৭ ১ ০
১০৭ ত্রিনিদাদ ও টোবাগো ৫৭ ০ ০
১০৮ ঘানা ৫৩ ২ ০
১০৯ লিচেনস্টেইন ৫১ ০ ০
১১০ উজবেকিস্তান ৫০ ০ ০
১১১ কিউবা ৪৮ ১ ১
১১২ মন্টিনিগ্রো ৪৭ ১ ০
১১৩ ফিলিস্তিন ৪৪ ০ ০
১১৪ নাইজেরিয়া ৪৪ ১ ২
১১৫ কিরগিজস্তান ৪২ ০ ০
১১৬ রুয়ান্ডা ৪০ ০ ০
১১৭ পুয়ের্তো রিকো ৩৯ ২ ১
১১৮ প্যারাগুয়ে ৩৭ ৩ ০
১১৯ মায়োত্তে ৩৬ ০ ০
১২০ হন্ডুরাস ৩৬ ০ ০
১২১ গুয়াম ৩২ ১ ০
১২২ বলিভিয়া ৩২ ০ ০
১২৩ ফ্রেঞ্চ পলিনেশিয়া ২৫ ০ ০
১২৪ কেনিয়া ২৫ ০ ০
১২৫ জ্যামাইকা ২৫ ১ ২
১২৬ ফ্রেঞ্চ গায়ানা ২৩ ০ ৬
১২৭ মোনাকো ২৩ ০ ১
১২৮ ফ্রেঞ্চ গায়ানা ২৩ ০ ৬
১২৯ গুয়াতেমালা ২১ ১ ০
১৩০ টোগো ২০ ০ ১
১৩১ ম্যাসেডোনিয়া ১৯ ০ ১
১৩২ বার্বাডোস ১৮ ০ ০
১৩৩ আরুবা ১৭ ০ ১
১৩৪ ম্যাকাও ১৫ ০ ১০
১৩৫ জিব্রাল্টার ১৫ ০ ৫
১৩৬ মালদ্বীপ ১৩ ০ ৫
১৩৭ ইথিওপিয়া ১২ ০ ০
১৩৮ তানজানিয়া ১২ ০ ০
১৩৯ মঙ্গোলিয়া ১০ ০ ০
১৪০ ইকোয়েটরিয়াল গিনি ৯ ০ ০
১৪১ ইকোয়েটরিয়াল গিনি ৯ ০ ০
১৪২ সুরিনাম ৭ ০ ০
১৪৩ সিসিলি ৭ ০ ০
১৪৪ নামিবিয়া ৭ ০ ২
১৪৫ ডোমিনিকা ৭ ০ ০
১৪৬ গ্যাবন ৬ ১ ০
১৪৭ কেম্যান আইল্যান্ড ৬ ১ ০
১৪৮ বেনিন ৬ ০ ০
১৪৯ গায়ানা ৫ ১ ০
১৫০ বাহামা ৫ ০ ১
১৫১ গ্রীনল্যাণ্ড ৫ ০ ২
১৫২ ভ্যাটিকান সিটি ৪ ০ ০
১৫৩ গিনি ৪ ০ ০
১৫৪ কঙ্গো ৪ ০ ০
১৫৫ ভ্যাটিকান সিটি ৪ ০ ০
১৫৬ অ্যান্টিগুয়া ও বার্বুডা ৩ ০ ০
১৫৭ সুদান ৩ ১ ০
১৫৮ নাইজার ৩ ০ ০
১৫৯ তাজিকিস্তান ৩ ০ ০
১৬০ সেন্ট পিয়ের ও মিকুয়েলন ৩ ০ ০
১৬১ লাইবেরিয়া ৩ ০ ০
১৬২ সেন্ট লুসিয়া ৩ ০ ০
১৬৩ অ্যান্টিগুয়া ও বার্বুডা ৩ ০ ০
১৬৪ ভুটান ২ ০ ০
১৬৫ নেপাল ২ ০ ১
১৬৬ মৌরিতানিয়া ২ ০ ০
১৬৭ মার্কিন ভার্জিন আইল্যান্ড ২ ০ ০
১৬৮ ক্রিস্টমাস আইল্যান্ড ১ ০ ০
১৬৯ মধ্য আফ্রিকান প্রজাতন্ত্র ১ ০ ০
১৭০ গাম্বিয়া ১ ০ ০
১৭১ মন্টসেরাট ১ ০ ০
১৭২ সেন্ট ভিনসেন্ট ও গ্রেনাডাইন আইল্যান্ড ১ ০ ০
১৭৩ সোমালিয়া ১ ০ ০
তথ্যসূত্র: চীনের জাতীয় স্বাস্থ্য কমিশন (সিএনএইচসি) ও অন্যান্য।

Related posts