ভারতে একদিনেই ২ হাজার মৃত্যু, ছাড়াল অতীতের সব রেকর্ড

চাঁদপুর ডাক : শেষ পর্যন্ত কি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার আশঙ্কাই বাস্তবে রূপ নিচ্ছে ভারতে? প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ দেশটিতে কমার তো কোনও লক্ষণই নেই, উল্টো প্রাণহানিতে অতীতে সব রেকর্ড ছাড়িয়ে গেছে। এই প্রথমবার একদিনেই দুই হাজারের বেশি মানুষের প্রাণ কেড়েছে করোনা।

অপরদিকে, ধারণার চেয়ে বাড়ছে সংক্রমণ। সময়ের সাথে দীর্ঘ হচ্ছে শিকারের সংখ্যা। যা ইতিমধ্যে সাড়ে ৩ লাখ ছাড়িয়েছে। থেমে নেই প্রাণহানিও। মৃতের হারে ভারত এখন আট নম্বরে।

দেশটির কেন্দ্রিয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে বিশ্বখ্যত জরিপ সংস্থা ওয়ার্ডোমিটারের তথ্যে বলা হয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় ১১ হাজার ১৩৫ জনের দেহে মিলেছে করোনার সংক্রমণ। এ নিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা ৩ লাখ ৫৪ হাজার ১৬১ জনে দাঁড়িয়েছে। এর মধ্যে মহারাষ্ট্রে আক্রান্ত লাখের ঘরে ঢুকে পড়েছে আগেই। তামিলনাড়ু ও দিল্লি পাল্লা দিয়ে ছুটছে ৫০ হাজারের দিকে।

আক্রান্তের পাশাপাশি প্রাণহানির সংখ্যাও উদ্বেগ বাড়াচ্ছে। মোট মৃত্যুর নিরিখে বেলজিয়ামকে টপকে বিশ্বের অষ্টম স্থানে এখন ভারত। গত একদিনে সেখানে করোনার থাবায় ২ হাজার ৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। এতে প্রাণহানি বেড়ে ১১ হাজার ৯২১ জনে জনে ঠেকেছে।

এর মধ্যে সবচেয়ে মহারাষ্ট্রেই সাড়ে ৪ হাজার মানুষের মৃত্যু হয়েছে। এরপরই রয়েছে, গুজরাট ও রাজধানী দিল্লি। চারে মমতার পশ্চিমবঙ্গ।

করোনা আক্রান্তের সংখ্যা প্রতিদিন উল্লেখযোগ্য হারে বাড়লেও, আক্রান্তদের সুস্থ হয়ে ওঠার সংখ্যাটাও বাড়ছে। অ্যক্টিভ রোগীর সংখ্যার থেকে সুস্থ হয়ে ওঠার সংখ্যাটা এখন বেশি। কোভিডে আক্রান্ত হওয়ার পর এখনও অবধি ১ লাখ ৮৭ হাজার ৫৫২ জন সুস্থ হয়েছেন।

বর্তমানে একটিভ রোগীর সংখ্যা ১ লাখ ৫৪ হাজার ৬৮৮ জন। এর মধ্যে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ৮ হাজার ৯৪৪ জন ভারতীয়।১৭ জুন ২০২০.

Related posts