হাইমচরে মোবারক হত্যা : খুনি দুই সহোদর গ্রেফতার

হাইমচর উপজেলার ভিঙ্গুলিয়া গ্রামে সংঘটিত আলোচিত মোবারক হত্যার ঘটনায় খুনি দুই সহোদর মহন ও রাজন খানকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়েছে হাইমচর থানা পুলিশ। গতকাল ২২ মার্চ সোমবার জয়পুরহাট থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয় বলে সাংবাদিকদের জানিয়েছেন হাইমচর থানার অফিসার ইনচার্জ মাহবুব মোল্লা। এ নিয়ে মোবারক হত্যা মামলার এজাহারভুক্ত প্রধান দুইজনসহ তিনজন আসামিকে ঘটনার দু’দিনের মাথায় গ্রেফতার করা হলো।

গতকাল সোমবার ভোরে হাইমচর থানা পুলিশ জয়পুরহাট জেলার হিলি থেকে মহন ও রাজনকে আটক করে হাইমচর থানায় নিয়ে আসে। আজ ২৩ মার্চ আসামিদের আদালতে সোপর্দ করা হবে।

উল্লেখ্য, এলাকায় আধিপত্য বিস্তার ও সিনিয়র জুনিয়র দ্বন্দ্বে গত ২০ মার্চ শুক্রবার সন্ধ্যায় হাইমচর উপজেলার ভিঙ্গুলিয়া গ্রামের মিজান খানের ছেলে মহন খান ও রাজন খান পার্শবর্তী গনি গাজীর ছেলে মোবারকসহ আরো ৪/৫ জনের উপর অতর্কিত হামলা চালায়। এ সময় তাদের ছুরিকাঘাতে ৫ জন রক্তাক্ত জখম হয়। এদের মধ্যে গুরুতর আহত মোবারক গাজীকে (২০) চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে নেয়া হলে কর্মরত চিকিৎসক তাকে মৃত বলে জানান। অপর আহতদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ঘটনার পরপর খুনিরা এলাকা থেকে পালিয়ে যায়।

এ ঘটনায় নিহত মোবারকের বাবা গনি গাজী বাদী হয়ে ৪ জনের নাম উল্লেখ করে হাইমচর থানা হত্যা মামলা দায়ের করেন

এলাকাবাসী জানায়, নিহত মোবারক একজন নিরীহ ছেলে। সে এলাকায় থাকতো না, নারায়ণগঞ্জের একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে চাকরি করতো। মিজান খানের ছেলে মোহন ও রাজনের সাথে স্থানীয় শাহজাহান ভূঁইয়ার ছেলে মহিনের বিরোধের জের ধরে সহিংসতায় নিরীহ মোবারককে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়

এ ব্যাপারে হাইমচর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মাহবুবুর রহমান মোল্লা জানান, মোবারক গাজীর হত্যার মূল আসামী মহন ও রাজনকে আটক করা হয়েছে।

Related posts