শীতলক্ষ্যায় লঞ্চডুবি : শিশুসহ ৩৪ জনের লাশ উদ্ধার

নারায়ণগঞ্জ শহরের কয়লাঘাট এলাকায় শীতলক্ষ্যা নদীতে কার্গোর ধাক্কায় যাত্রীবাহী লঞ্চডুবির ঘটনায় শিশুসহ ৩৪ জনের লাশ উদ্ধার করা হলো। আজ মঙ্গলবার সকালে শীতলক্ষ্যা নদীর বিভিন্ন স্থানে ভেসে উঠলে লাশগুলো উদ্ধার করা হয় বলে জানিয়েছেন নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নাহিদা বারিক। তিনি বলেন, উদ্ধার হওয়া পাঁচটি লাশ পুরুষের। লাশগুলো স্বজনদের কাছে হস্তান্তরের প্রক্রিয়া চলছে। উদ্ধার হওয়া প্রতিটি লাশ দাফনের জন্য সরকারিভাবে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ২৫ হাজার টাকা করে দেওয়া হবে।

এর আগে গতকাল সোমবার দুপুরে ডুবে যাওয়া লঞ্চটি টেনে তীরে আনার পর উদ্ধার অভিযান সমাপ্ত ঘোষণা করেন জেলা প্রশাসক মোস্তাইন বিল্লাহ।

নারায়ণগঞ্জ সদর নৌ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শহীদুল ইসলাম প্রথম আলোকে বলেন, ধাক্কা দিয়ে লঞ্চ ডুবিয়ে দেওয়ার ঘটনায় অভিযুক্ত কার্গোটি জব্দের চেষ্টা চলছে। ডুবে যাওয়া লঞ্চটিকে জব্দ করা হয়েছে।

গত রোববার সন্ধ্যা ছয়টার দিকে বিআইডব্লিউটিএ টার্মিনাল থেকে ছেড়ে যাওয়া যাত্রীবাহী লঞ্চ এমভি সাবিত আল হাসানকে শহরের কয়লাঘাট এলাকায় কার্গো এসকেএল-৩ পেছন থেকে ধাক্কা দেয়। এতে লঞ্চটি ডুবে যায়। এ ঘটনায় অনেকে সাঁতরে তীরে উঠতে পারলেও নিখোঁজ থাকেন অনেকে। লঞ্চডুবির ঘটনায় জেলা প্রশাসন ও বিআইডব্লিউটিএ দুটি তদন্ত কমিটি করেছে।

Related posts