ঢাকা, শনিবার, ৩১শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১৬ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

চাঁদপুরের করোনা ওয়ার্ডে ২৪ ঘন্টায় ৭জনের মৃত্যু

চাঁদপুর সরকারি জেনারেল (সদর) হাসপাতালের করোনা আইসোলেন ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ২৪ ঘন্টার ব্যবধানে ৭জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে ৩জন করোনায় আক্রান্ত রোগী, ৩জনের করোনা টেস্টের রিপোর্ট করোনা নেগেটিভ এবং ১জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়নি। তবে মৃত সবাই করোনার উপসর্গে আক্রান্ত ছিলেন। সোমবার সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত ৬জন ও রোববার সন্ধ্যায় ১জন মারা গেছেন।

চাঁদপুর সদর হাসপাতালের করোনা বিষয়ক ফোকালপার্সন ডা. সুজাউদ্দৌলা রুবেল জানান, হাইমচর উপজেলার গন্ডামারা এলাকার মোঃ জাকির হোসেন (৭০) সোমবার বিকেল সাড়ে ৫টায় মারা যান। তিনি রোববার দুপুর ১২টার দিকে হাসপাতালে ভর্তি হন। জাকির হোসেন করোনায় আক্রান্ত ছিলেন। হাজীগঞ্জের বাকিলা এলাকার সিরাজুল ইসলাম (৭০) গত ১৬ এপ্রিল দুপুরে সদর হাসপাতালে ভর্তি হন। তিনিও করোনায় আক্রান্ত ছিলেন। সোমবার দুপুর ১টা ৫০ মিনিটে তিনি আইসোলেশন ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। চাঁদপুর শহরের মাদ্রাসা রোডের সৈয়দুন্নেছা (৭০) সোমবার দুপুর পৌনে ৩টায় মারা যান। তিনি একই দিন পৌনে ২টায় তিনি হাসপাতালে আসেন। তার নমুনা পরীক্ষার পর রাতে রিপোর্ট আসে করোনা পজেটিভ।

ডা. রুবেল আরো জানান, পুরানবাজারের জাফরাবাদ এলাকার মিলন গাজী (৭০) সোমবার দুপুর ২টার দিকে মারা যান। রোববার বেলা ১১টা ২০ মিনিটে তিনি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। তবে তার করোনা টেস্টের রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছিল। এছাড়া সোমবার বিকেল সাড়ে ৩টায় মারা যান চাঁদপুর সদর উপজেলার আশিকাটির মাজেদা বেগম (৭০)। তিনি হাসপাতালে আসেন এর এক ঘন্টা আগে। শহরের গুয়াখোলা এলাকার সালামত মিজি (৬৮) মারা যান বিকেল ৩টা ৫০ মিনিটের সময়। তিনি হাসপাতালে আসেন বেলা ১২টা ৪০ মিনিটে। তাদের ২জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। রাতে রিপোর্ট আসে করোনা নেগেটিভ।

এর আগে রোববার (১৮ এপ্রিল) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় চাঁদপুর সদর হাসপাতালের করোনা আইসোলেশন ওয়ার্ডে লতিফা বেগম (১০৫) নামের এক বৃদ্ধার মৃত্যু হয়েছে। তার বাড়ি চাঁদপুর সদর উপজেলার বাগড়া বাজার সংলগ্ন উত্তর বালিয়া গ্রামে। করোনার উপসর্গ নিয়ে ওই দিন বিকেল সাড়ে ৪টায় হাসপাতালে এসেছিলেন তিনি। তার নমুনা সংগ্রহ না করায় আর জানার সুযোগ থাকছে না তিনি করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন কিনা।

চাঁদপুর সিভিল সার্জন অফিসের হিসেব অনুযায়ী, রোববার পর্যন্ত জেলায় করোনায় মৃতের সংখ্যা ১০৪জন। এ নিয়ে জেলায় করোনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে হলো ১০৭জন। যদিও সোমবার পর্যন্ত ১০৬জনের মৃত্যুর তথ্য প্রকাশ করেছে সিভিল সার্জন অফিস। মঙ্গলবার অন্যজনের তথ্য প্রকাশ করা হবে বলে জানা গেছে।

সর্বশেষ - প্রথমপাতা

জনপ্রিয় - প্রথমপাতা