ঢাকা, সোমবার, ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৫ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

চাঁদপুরে লকডাউনে পুলিশ প্রশাসনের কঠোর অবস্থান

চাঁদপুরে ঈদ পরবর্তী লকডাউনের ৬ষ্ট দিনেও কঠোর অবস্থানে রয়েছে চাঁদপুরের জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসন। সকাল থেকে রাত পর্যন্ত মাঠে রয়েছে পুলিশ সদস্যরা, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটগন, সেনাবাহিনী, বিজিবি সদস্যরা।

লকডাউনে সরকারি বিধিনিষেধ অমান্য করা এবং ভোক্তা অধিকার আইন লঙ্ঘন করে যারা বাহিরে বের হচ্ছে তাদেরকে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে মামলা দিয়ে অর্থদণ্ড আদায় করা হচ্ছে।

লকডাউনের ৬ষ্ঠ দিনেও চাঁদপুর শহরের বিভিন্ন স্থানে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত করা হয়।

২৮ জুলাই বুধবার সকাল থেকে চাঁদপুর শহরের কালীবাড়ি শপথ চত্বর এলাকা, পালবাজার গেট, বাবুরহাট, বাস স্ট্যান্ড, চেয়ারম্যান ঘাটা, ওয়ারলেস সহ বিভিন্ন স্থান পরিদর্শন করেন চাঁদপুরের পুলিশ সুপার মিলন মাহমুদ।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইবনে জায়েদ হোসেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুদীপ্ত রায়, চাঁদপুর সদর সার্কেল আসিফ মহিউদ্দিন, চাঁদপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আব্দুর রশিদ, টিআই প্রশাসন জহিরুল ইসলাম সহ অন্যান্য পুলিশ সদস্যরা।

লকডাউনের ষষ্ঠ দিনেও শহরের বিভিন্নস্থানে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন চাঁদপুর জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটগন। এতে যারা লকডাউন অমান্য করে বিনা কারণে বাইরে বের হয়েছে এবং যারা দোকানপাট খোলা রেখেছেন তাদের বিরুদ্ধে স্বাস্থ্য ও দণ্ডবিধির ২৬৯ ধারায় মামলা করা হয়।

এদিন চাঁদপুর শহরের কালিবাড়ি মোড়, পাল বাজার, বাস স্টেশন, ওয়্যাররলেছ মোড়, বাবুরহাট এলাকায় চেক পোস্ট বসিয়ে লকডাউনে নিষিদ্ধ যানবাহনের উপর কড়া নজরদারি করেন এবং মোটর সাইকেলের উপর অভিযান পরিচালনা করেন।

যারা বিনা কারণে বাসা থেকে সড়কে বের হয়েছে তাদেরকেও ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করেন। শুধু তাই নয় সিএনজি স্কুটার, ব্যাটারী চালিত অটোবাইক একই রিক্সায় একাধিক যাত্রী যাতে চরতে না পারে তার উপর গুরুত্ব আরোপ করেন।

এছাড়া লকডাউনের প্রথম এবং দ্বিতীয় দিন থেকে শুরু করে গত কয়েক দিনে সকাল থেকে রাত পর্যন্ত চাঁদপুর শহরের বিভিন্ন স্থানে চাঁদপুর জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের বেশ কয়েকজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটগন মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন।

এসময় লকডাউন অমান্য করে যারা বিনা কারণে বাইরে বের হয়েছে তাদেরকে আলাদা আলাদাভাবে মামলা দিয়ে অর্থদণ্ড আদায় করা হয়েছে।

চাঁদপুরে এই কঠোর লকডাউন চলমান পরিস্থিতিতে চাঁদপুর জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের এই মোবাইল কোর্ট এবং পুলিশ প্রশাসনের এই কঠোর নজরদারি অব্যাহত থাকবে বলে জানা গেছে।

সর্বশেষ - চাঁদপুরপ্রথমপাতাসমসাময়িকসারাদেশ

জনপ্রিয় - চাঁদপুরপ্রথমপাতাসমসাময়িকসারাদেশ