ঢাকা, সোমবার, ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৫ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

ভাত খাওয়ার পর ঘুম দূর করার উপায় কী?

লাইফস্টাইল ডেস্কঃ 

আয়েশ করে ভাত খাওয়ার পর দেখা যায় শরীর অনেকটা অলসতা বোধ করে। ঘুম পেতে থাকে। মনে হয়, এখনই বিছানা পেতে ঘুমিয়ে যাই। আপনার সঙ্গেও নিশ্চয়ই এমনটা ঘটে থাকে? যদিও দুপুরের খাবারের পর মাঝে মাঝে ঘুমানো খারাপ নয়, তবে সপ্তাহের প্রতিদিন তা সম্ভব নয়। এজন্য আপনি যদি আপনার পছন্দের খাবার ভাত খাওয়া ছেড়ে দিতে না চান, তাহলে চিন্তা করবেন না।

ভারতের সেলিব্রিটি পুষ্টিবিদ পূজা মাখিজা সম্প্রতি ইনস্টাগ্রামে একটি পোস্ট শেয়ার করে ব্যাখ্যা করেছেন যে, ভাত খাওয়ার পরে কেন অলসতা লাগে এবং তা প্রতিরোধের উপায়।

ভাত খেলে কেন ঘুম পায়

ভাত আমাদের সংস্কৃতি জুড়ে সর্বকালের প্রিয় খাবারের একটি। এতে কার্বোহাইড্রেট বেশি এবং স্বাস্থ্যকর। ভাত সুষম খাবারের অংশও। যদিও ভাত আমাদের ঘুমের কারণ সৃষ্টি করে, তার মানে এই নয় যে এটি কোনোভাবেই স্বাস্থ্যকর নয়।

সমস্ত কার্বোহাইড্রেট শরীরে একই রকম প্রভাব ফেলে, এগুলো গ্লুকোজে রূপান্তরিত হয়, যার জন্য ইনসুলিনের প্রয়োজন হয়। ইনসুলিনে একবার সুগার উঠলে, এটি মস্তিষ্কে ট্রিপটোফ্যানের অপরিহার্য ফ্যাটি অ্যাসিড প্রবেশে উৎসাহ দেয়। এই প্রক্রিয়াটি মেলাটোনিন এবং সেরোটোনিন বৃদ্ধি করে যা শান্ত হরমোন এবং তন্দ্রা সৃষ্টি করে।

স্নায়ুতন্ত্রের এই প্রতিক্রিয়া সম্পূর্ণ স্বাভাবিক। এটি শরীরকে ধীর করে দেয় যাতে এটি অন্য কোন কিছুর উপর ফোকাস করতে পারে না বরং শুধু হজমের দিকে মনোযোগ দেয়।

অল্প খান

আপনার দুপুরের খাবারে ৫০ শতাংশ সবজি, ২৫ শতাংশ প্রোটিন এবং ২৫ শতাংশ কার্বোহাইড্রেট থাকা উচিত। আপনাকে অবশ্যই খাবারে কার্বোহাইড্রেট যোগ করতে হবে কারণ এটি আপনাকে শক্তি সরবরাহ করে। তবে অলসতা রোধ করতে খেতে হবে অল্প পরিমাণে।

ধীরে চিবিয়ে খান

তাড়াহুড়ো করে অনেকগুলো খাবার খেয়ে ফেলবেন না। অল্প ভাত নিয়ে ধীরে চিবিয়ে খান। যারা রুটি কিংবা ভাত বেশি খান স্বাভাবিক ভাবেই তাদের খাবারের পরিমাণ বেড়ে যায়। বেশি খাওয়া হয়ে গেলে তা হতে পারে তন্দ্রার কারণ। যত বেশি খাবেন, তত বেশি ক্লান্তি দেখা দেবে। তাই ভাত খাওয়ার পর ক্লান্তি, অলসতা, ঘুম দূর করার জন্য ধীরে চিবিয়ে খাবার খাওয়ার অভ্যাস করুন।

২৮ আগস্ট, ২০২১ 

সর্বশেষ - Lifestyleপ্রথমপাতালাইফস্টাইল

জনপ্রিয় - Lifestyleপ্রথমপাতালাইফস্টাইল