ঢাকা, শনিবার, ৪ঠা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

ইলিশ রক্ষার অভিযানে এ পর্যন্ত ১৯০ জন জেলেকে গ্রেফতার

চাঁদপুর ডাক ডেস্ক: আগামি ২৫ অক্টোবর পর্যন্ত ২২ দিনব্যাপি জাতীয় সম্পদ ইলিশ রক্ষার অভিযানে টাস্কফোর্স কর্তৃক এ পর্যন্ত ২২৫টি অভিযান ও ৬৩টি মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়েছে। এ হিসাব ২০ অক্টোবর অভিযানের ১৭তম দিন পর্যন্ত।

অভিযান পরিচালনাকারী সংস্থাগুলোর মধ্যে রয়েছে পদ্মা-মেঘনার জেলা-উপজেলা প্রশাসন, কোস্ট গার্ড, নৌ-পুলিশ, জেলা মৎস্য ও উপজেলা মৎস্য অধিদপ্তর।

অভিযান চালিয়ে প্রায় ১ কোটি ৫২ লাখ মিটার জাল আটক করা হয়। যার মূল্য হবে ২০ কোটি ১৬ লাখ টাকারও অধিক। অভিযানে এ পর্যন্ত ১৯০ জন জেলেকে আটকপূর্বক মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয় যাদের অধিকাংশ চাঁদপুর সদর, মতলব উত্তর ও হাইমচরের।

আরো পড়ুন-  শহিদ সরদারের নেতৃত্বে চলছে মা ইলিশ নিধনের মহোৎসব

জেলা মৎস্য অধিদপ্তর দ্বারা মোট ৭৫টি মামলা করা হয়েছে। এ ছাড়াও ১৩৮৬ টি আড়ৎ ও ৪৫৮ টি বাজার ও ১৯৪টি মাছঘাট মনিটরিং করা হযেছে। অভিযানে জব্দকৃত বিভিন্ন সামগ্রী বিক্রির মাধ্যমে ১৯ লাখ টাকা নিলামে আয় হয়েছে।

জেলা মৎস্য কর্মকর্তার কার্যালয়ের মনিটরিং কক্ষ থেকে ২০ অক্টোবর সূত্রে এ তথ্য জানা যায়।

প্রসঙ্গত,পদ্মা-মেঘনায় ইলিশের নিরাপদ প্রজননের লক্ষ্যে ইলিশসহ সব ধরনের মাছ আহরণ নিষিদ্ধ করা হয়েছে। জাতীয় সম্পদ ইলিশের উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে মিঠা পানিতে মা ইলিশকে ডিম ছাড়ার সুযোগ করে দিতেই এ অভিযান শুরু।

প্রসঙ্গত ,ইলিশের উৎপাদন বাড়াতে দেশের সব প্রজননগুলোতে ২২ দিন ইলিশ প্রজনন মৌসুম ঘোষণা করেছে সরকার। এ সময়ের মধ্যে ইলিশ ধরা,আহরণ,বিক্রি ও বিপণন বন্ধ থাকবে। ইলিশের এ প্রজনন সময়ে সরকারের মানবিক খাদ্য সহায়তা কর্মসূচির আওতায় চলতি অর্থবছরে জেলেদের ভিজিএফ চাল বরাদ্দ করা হয়েছে।

সর্বশেষ - ইলিশচাঁদপুরপ্রথমপাতা

জনপ্রিয় - ইলিশচাঁদপুরপ্রথমপাতা