ঢাকা, শনিবার, ৪ঠা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

খান জাহান আলী কালু পাটোয়ারীর রাজনৈতিক জীবন ও নির্বাচনী ইশতেহার

মোঃ হোসেন গাজী: 

৩ নভেম্বর বুধবার বিকাল ৩টা থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত ৩নং ওয়ার্ড পূর্ব বাখরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠের এক কর্মীসভায় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী খান জাহান আলী কালু পাটোয়ারী তার বক্তব্যে নিজের বর্নাঢ্য রাজনৈতিক ক্যারিয়ার এবং ১২নং চান্দ্রা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হিসেবে নিজের সফলতার কথা তুলে ধরেন।

ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হিসেবে জনগন তার সফলতা অবলোকন করলেও তার রাজনৈতিক অনেক অধ্যায় অজানা ছিলো। গতকাল সভায় খান জাহান আলী কালু পাটোয়ারী ৮০র দশক থেকে তার রাজনৈতিক কর্মকান্ডের এক সংক্ষিপ্ত পরিসর জনগনের সামনে উন্মোচন করেন।

  • ১৯৮৬ সালের ১১ নভেম্বর প্রথম ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক মনোনীত।
  • ১৯৮৬ সাল থেকে চলতি বছর পর্যন্ত ২১শে ফেব্রুয়ারি প্রভাতফেরিতে দলিয় নেতা কর্মীদের নিয়ে অংশ গ্রহন। ১৯৮৬ সাল থেকে জননেত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত সকল কর্মসূচীতে দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে অংশ গ্রহন করে।
  • ১৯৯৬ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারির পাতানো নির্বাচনে অসহযোগ আন্দলনে চান্দ্রা ব্যাংক ইউপি কার্যালয়, হাই স্কুল, মাদ্রাসা তালা মেরে বন্ধ করে দেয়া, চান্দ্রার ৯ টি ব্যালট বাক্স কেন্দ্রে যেতে বাধা দেয়া।
  • ২০০০ সালের ৫ মে মায়া চৌধুরি, ডাঃ মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন সহ চান্দ্রা হাই স্কুলে বিশাল জনসভার আয়োজন করা। 
  • ২০০৩ সালের ২৭ জানুয়ারি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে প্রথম বারের মত চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়া।
  • ২০০৫ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর চান্দ্রা হাই স্কুল মাঠে কেন্দ্রীয় নেতা আব্দুল রাজ্জাক, ডাঃ মহিউদ্দিন খান আলমগীর সহ স্মরনকালের শ্রেষ্ঠ জনসভার আয়োজন করা।
  • ২০০৬ সালে চাদঁপুর জেলার শ্রেষ্ঠ চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়ে স্বর্নপদকসহ ৩ লক্ষ ৩২ হাজার সরকারি টাকা পুরষ্কার প্রাপ্তি। ২১ আগষ্ট গ্রেনেড হামলার প্রতিবাদে চান্দ্রা ইউনিয়নে্র ইতিহাসের সর্ববৃহৎ প্রতিবাদ বিক্ষোভ মিছিলের আয়োজন করা। 
  • ৫ জানুৃৃয়ারী ২০১৪ নির্বাচন ঠেকানোর নামে আগুন সন্ত্রাস ও পেট্টোল বোমার বিরুদ্ধে চান্দ্রা বাজার, চৌরাস্তা, মদিনা মার্কেটে দলীয় নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে প্রতিরোধ গড়ে তোলে।
  • ২০১৬ সালের ৩১সে অক্টোবর জননেত্রী শেখ হাসিনার মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী হিসেবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়া।
  • নিয়মিত দায়িত্বপালনের পাশাপাশি জনকল্যানমুখী যেসব কার্যক্রম চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালনরত অবস্থায়  করেছেন, সেগুলোর উল্লেখযোগ্য কাজ হলো, চান্দ্রা ইউনিয়নের সীমানায় সকল অপমৃত্যুর বিনা ময়না তদন্তে বিনা খরচে দাফনের ব্যবস্থা, ১৩ টি নতুন নতুন রাস্তা পাকা করন, তিনটি মাদরাসার নতুন ভবন, হাই স্কুল ও প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ১৩ টি নতুন ভবন নির্মান।

এবার নির্বাচিত হয়ে ইশতেহার হিসেবে (নিয়মিত দায়িত্বপালনের সাথে বৃহত্তর জনকল্যানকর কাজ) তিনি যা করবেন,

  • ইউনিয়নের সীমানায় সকল জুমার মসজিদের সোলার স্থাপন।
  • চান্দ্রা ইউনিয়ন এর গুরুত্বপূর্ণ স্থানে এলইডি লাইট স্থাপন।
  • দক্ষিণ বালিয়া চেয়ারম্যান রোডসহ অসমাপ্ত সকল রাস্তা পাকা করা।

সর্বশেষ - চাঁদপুর সদররাজনীতি

জনপ্রিয় - চাঁদপুর সদররাজনীতি